কদিন বাদেই কোরবানির ঈদ। তাই শুরু হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। তারই ধারাবাহিকতায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বসেছে পশুর হাট। গত কয়েক বছরের মতো এবারও হাটে গরু-ছাগলের পাশাপাশি উটও উঠেছে। এ প্রতিবেদনে কোরবানির পশুর হাটবিষয়ক তথ্যাদি উপস্থাপন করা হলো।

গত বছর রাজধানীতে ১৩টি পশুর হাট বসলেও এবার ১২টি বসেছে বলে জানিয়েছে ঢাকা সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুর রহমান। তিনি জানান, এবার পশুর হাটে ১০০ টাকায় পাঁচ টাকা হারে হাসিল ধরা হয়েছে।

আসন্ন কোরবানি ঈদ উপলক্ষে ঢাকা শহরের পশুর হাটগুলোয় আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও গরু-ছাগলের বেপারিদের নিরাপত্তার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। প্রতি হাটে থাকছে একটি পুলিশ নিয়ন্ত্রণকক্ষ। হাট তদারকির জন্য কাজ করছে একটি ভ্রাম্যমান দল। আর ঢাকা শহর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য নেওয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা।

এবার ঈদ উপলক্ষে ঢাকা শহরের যেসব স্থানে অস্থায়ী কোরবানির পশুর হাট বসেছে, সেগুলোর ঠিকানা নিচে দেওয়া হলো-

আরমানিটোলা খেলার মাঠ ও পার্শ্ববর্তী চিত্রামহলসংলগ্ন ঢাকা সিটি করপোরেশনের খালি জায়গা, ঝিগাতলা হাজারীবাগ মাঠ, হোসেনী দালান রোড (চানখাঁরপুল চৌরাস্তা থেকে বকশীবাজার ট্রাফিক সিগন্যাল পর্যন্ত), গোপীবাগ ব্রাদার্স ইউনিয়নসংলগ্ন বালুর মাঠ, উত্তরা আজমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ ও রাজউকের খালি জায়গা, খিলগাঁও মেরাদিয়া বাজার, তালতলা বাসস্ট্যান্ডের পশ্চিম পাশের খালি জায়গা, আগারগাঁও বস্তির খালি জায়গা বেতার ভবনের পশ্চিমে, পোস্তগোলা আলম মার্কেটের সামনের রাস্তার পূর্বপাশে ব্রিজসংলগ্ন খালি জায়গা, ৮৫ নম্বর ওয়ার্ডের আউটফল স্টাফ কোয়ার্টারের দক্ষিণ পাশে ঢাকা সিটি করপোরেশনের খালি জায়গা, লালবাগের রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ এবং সূত্রাপুরের ধূপখোলা খেলার মাঠ। তা ছাড়া রয়েছে গাবতলীর নিয়মিত গরুর হাট।

**************************
লেখকঃ রেজাউল করিম রুমী
নকশা, দৈনিক প্রথম আলো, ১৮ ডিসেম্বর ২০০৭